পাসপোর্টে স্বামী/স্ত্রীর নাম সংযোজন/সংশোধন/পরিবর্তন করার নিয়ম PassportSpouse Name Add/Change BD

 

আপনি আপনার পাসপোর্টে স্পাউস নেম অর্থাৎ স্বামী বা স্ত্রীর নাম পরিবর্তন করতে যাচ্ছেন, এটি আসলে কিভাবে করবেন? বিভিন্ন পরিস্থিতির উপর ভিত্তি করে স্পাউস নাম পরিবর্তনের জন্য বিভিন্ন ধরনের পেপারস এর প্রয়োজন হয়ে থাকে। বিস্তারিত জানতে

 

আপনি বিবাহের পূর্বে আপনার পাসপোর্ট করেছিলেন। এখন আপনি বিবাহ করেছেন, সে ক্ষেত্রে আপনার পাসপোর্ট কিভাবে স্পাউস নেম অর্থ স্বামী বা স্ত্রীর নাম যুক্ত করবেন?

এজন্য পাসপোর্ট আবেদনের সঙ্গে অবশ্যই ম্যারেজ সার্টিফিকেট বা নিকাহনামা বা বিবাহ সার্টিফিকেট জমা দিতে হবে।

 

যদি এমন হয় আপনার পাসপোর্টে স্বামী বা স্ত্রীর নাম যুক্ত রয়েছে কিন্তু বর্তমান সময়ে আপনার স্পাউসের সঙ্গে ছাড়াছাড়ি হয়ে গেছে অর্থাৎ ডিভোর্স হয়ে গিয়েছে। এখন যদি আপনার পাসপোর্ট থেকে স্পাউসের নাম বাদ দিতে চান, তাহলে কি করা উচিত?

এমন অবস্থার সম্মুখীন হলে পাসপোর্ট এর আবেদনের সঙ্গে অবশ্যই ডিভোর্স নামা যুক্ত করে জমা দিতে হবে।

 

যদি এমন হয় স্পাউস মাঝে যেকোন একজন মারা গিয়েছে, সেক্ষেত্রে পাসপোর্টের আবেদনের সাথে স্পাউস অর্থাৎ স্বামী স্ত্রী এর মৃত্যু সনদ জমা দিতে হবে।

 

এখন যদি আপনার পূর্ববর্তী স্পাউস নেম অর্থাৎ স্বামী বা স্ত্রীর নাম বাদ দিয়ে নতুন স্বামী স্ত্রীর নাম অর্থাৎ নতুন স্পাউস নাম যুক্ত করতে চান সেক্ষেত্রে আপনার কি প্রয়োজন হবে?

যদি পূর্ববর্তী স্পাউস এর সঙ্গে ডিভোর্স হয়ে যায়, এবং নতুন কারো সঙ্গে বিবাহে আবদ্ধ হয়ে গেলে, সেই বিবাহের ম্যারেজ সার্টিফিকেট বা নিকাহনামা বা বিবাহ সনদ ও পূর্ববর্তী যার সাথে ডিভোর্স হয়েছে সেই ডিভোর্স নামা অবশ‍্যই পাসপোর্ট এর আবেদনের সাথে জমা দিতে হবে।

 

যদি স্পাউসের মাঝে অর্থাৎ স্বামী বা স্ত্রী মারা যায়, আর পূর্ববর্তী স্পাউস অর্থাৎ স্বামী বা স্ত্রীর নাম বাদ দিয়ে নতুন স্বামী স্ত্রীর নাম অর্থাৎ নতুন স্পাউস নাম যুক্ত হিসেবে যুক্ত করতে চান সেক্ষেত্রে আপনার করণীয় কি?

যদি পূর্ববর্তী স্পাউসের যেকোন এক জন মারা যায়, এবং নতুন কারো সঙ্গে বিবাহে আবদ্ধ হয়ে গেলে, সেই বিবাহের ম্যারেজ সার্টিফিকেট বা নিকাহনামা বা বিবাহ সনদ ও পূর্ববর্তী স্পাউস অর্থাৎ স্বামী বা স্ত্রীর মৃত্যু সনদ অবশ‍্যই পাসপোর্ট এর আবেদনের সাথে জমা দিতে হবে।

 

বিবাহ বা বিবাহ বিচ্ছেদ বা অন্য কোন কারণে কোনো মহিলা তাহার নামের সহিত স্বামীর নামের অংশ (টাইটেল) সংযোজন বা বিয়োজন বা সংশোধন করিতে চাহিলে, তাহাকে কাবিননামা/তালাকনামা/মৃত্যু সনদ/ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে সম্পাদিত হলফনামা/বিবাহ বিচ্ছেদ ডিক্রির সত্যায়িত অনুলিপি জমা দিতে হইবে। এক্ষেত্রে দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তা, প্রয়োজনে, সরেজমিন তদন্ত করিতে পারিবেন

 

যদি বিয়ে আদালতের মাধ্যমে হয় বা কোর্ট ম‍্যারেজ করেছেন তাহলে ম‍্যাজিটেড আদালত কৃত দেওয়া হলফ নামা জমা দিতে হবে।

যদি বিচ্ছেদ বা ডিভোর্স আদালতের মাধ্যমে হয় তাহলে বিবাহ বিচ্ছেদ ডিগ্রি এর সত‍্যায়িত অনুলিপি জমা দিতে হবে।

ওপরে উল্লিখিত পেপারস এর ফটোকপি সত‍্যায়িত করতে হবে, তার সাথে আসল কপি নিয়ে যেতে হবে ও আসল পাসপোর্ট জমা দিতে হবে।

Leave a Comment

error: Content is protected !!