পাসপোর্ট ছাড়াই এখন ভিসা ও মাস্টার কার্ড Buy Virtual Mastercard By Bkash Without Passport

 

Buy Virtual Master or Visa Card Without Passport

বর্তমান সময়ের সঙ্গে মিল রেখে আমরা হয়তো বা অনেকটাই  মর্ডান হয়ে যাচ্ছি আস্তে আস্তে । তার সাথে আমরা অনেকেই সোশ্যাল মিডিয়া ফেসবুক, ইনস্টাগ্রাম,  ইউটিউবে ভিডিও মার্কেটিং করতে চাই বা আমাদের বিজনেসের প্রমোশন করতে চাই এজন্য অবশ্যই বুস্ট করার প্রয়োজন হয়ে থাকে । আবার অনেকে ইন্টারন‍্যাশনাল কোন ই কমার্স শপ থেকে শপিং করতে চান ।

 

আর শপিং বা বুস্ট করার জন্য অবশ্যই ডুয়েল কারেন্সি কার্ড দরকার হয় । বাংলাদেশের প্রেক্ষাপটে ডুয়েল কারেন্সি কার্ড খুব কম ব্যাংকে প্রদান করে থাকে । আর অনেকেই এ সকল ডুয়েল কারেন্সি কার্ড নিলেও ঝামেলার কারনেই ব্যবহার করতে চায় না ।  বাংলাদেশের প্রেক্ষাপটে এসকল ডুয়েল কারেন্সি কার্ড নিতে গেলে অবশ্যই পাসপোর্ট এর সাথে পাসপোর্ট এর থাকতে হয় তাছাড়া ডুয়েল কারেন্সি কার্ড ইস্যু করা যায় না ।

 

 আমাদের জন্য ভার্চুয়াল মাস্টারকার্ডে হতে পারে সবচেয়ে আকর্ষণীয় বিষয় । পূর্বে অনেক কোম্পানিই ভার্চুয়াল মাস্টারকার্ড এনেছিল কিন্তু সেগুলো অনেক মানুষ ব্যবহার করেনি কিন্তু বর্তমানে এমন কিছু কিছু কয়েকটি ইন্টারন্যাশনাল কোম্পানি যারা ভার্চুয়াল মাস্টার্স ও ভিসা কার্ড এনেছে । বাংলাদেশ থেকে বিকাশের মাধ্যমে পেমেন্ট করে এই সব মাস্টার কার্ড নেওয়ার সুবিধা থাকছে ।  তাছাড়াও এখানে সাধারণত পেমেন্ট করা যায় perfect money, web money, criptocurrency, নেটেলার, স্কিল সহ আরো অনেক মাধ্যমে ।

 

আর এইসব ওয়েবসাইট হল :

globalvisacards.com

payzocard.com

ezzocard.com

 

এইসব ভার্চুয়াল কার্ড ব‍্যবহার করা যাবে যেসব স্হানে :

Facebook Boost or Promote

Youtube Boost or Promote

International E Commerce Shop

International Site Domain Hosting Buy

Instagram Boost

Likee Diamond Buy

এছাড়া সকল ইন্টারন‍্যাশনাল সাইটে এই কার্ড ব‍্যবহার করা যায় ।

 তবে এই সকল কাজের কিছু সুবিধা এবং অসুবিধা রয়েছে ।

 

সুবিধাসমূহঃ  সুবিধা সূমহের মধ্যে রয়েছে ভার্চুয়াল কার্ড বা প্রিপেইড কার্ড গুলো খুবই সহজে আপনি চাইলে আপনার বিকাশ পেমেন্ট এর মাধ্যমে কিনতে পারবেন কয়েক সেকেন্ডেই , এজন্য আপনার পাসপোর্ট এর দরকার হয়না এনগেজমেন্ট করতে হয় না ।

 

 অসুবিধাসমূহ : আমার কাছে অসুবিধাসমূহ বলতে মনে হয়েছে যে এই সকল virtual card আপনি একবার ইউজ করতে পারবেন , পরবর্তীতে এটি আর রিসার্চ করা যায় না ।  যদি দেখা যায় আপনি একটা কার্ড কিনে থাকেন সেক্ষেত্রে ১২ ডলার দিয়ে কিনলে কার্ডের ভিতরে পাবেন ৫ ডলার এর মত ।  কার্ডের প্রাইস এর উপর ভিত্তি করে কার্ডের ভিতরে থাকা ডলারের পরিমাণ কমবেশি পেয়ে থাকে ।

 

বিভিন্ন ওয়েবসাইট ভেদে এই সব কার্ড ব‍্যবহারের সুযোগ থাকে ৫ হতে ৬ মাস পর্যন্ত , এর বেশি সময় অতিবাহিত হলে আর ঐ কার্ড ব‍্যবহার করা যাবে না ।

2 thoughts on “পাসপোর্ট ছাড়াই এখন ভিসা ও মাস্টার কার্ড Buy Virtual Mastercard By Bkash Without Passport”

    • পাসপোর্ট করে নিয়ে বৈধ ভাবে করবেন কিনা তা আপনার সময়ের ওপর ডিপেন্ড করে

      Reply

Leave a Comment

error: Content is protected !!